Videos Songs Download https://sazzad.simdif.com

শুক্রবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৫

ভালোবাসার জয়



- হাসান ইমতি
 
হৃদয়ের অনন্ত হতে ভাসিয়ে দিলাম একফালি কোমল উষ্ণতা,
সব বিভেদ ভুলে বাড়ালাম শর্তহীন ভালোবাসার অবারিত হাত,
হাসি মুখের নরম বিকশিত জমিন ছুয়ে গেল হৃদয় গহীন,
লোহিত রক্ত কনিকা আপ্লূত হল বাধহীন হৃদয়াবেগের প্লাবনে,
শোণিতের রক্তিম প্রবাহে একাকার হয়ে মিশে গেল জাতিভেদ,
শুন্য হৃদয় যত ভরে দিলাম  ভালোবাসার উষ্ণতম অবগাহনে ...
অন্তহীন পিয়াসী হৃদয় কানায় কানায় ভরে গেল বহুগুনে
ফিরে পাওয়া ভালোবাসার স্বতঃস্ফূর্ত মানবিক প্রতিদানে,
কিছু নাম গ্রন্থিহীন অবিচ্ছেদ্য বন্ধনের মায়ায় জড়ালাম হৃদয় ...
সব অপূর্ণতার শুন্যতা পূর্ণ করে নিলাম মানবিক সংগমে,
সসীম আমি মানুষের অকাতর ভালোবাসার জ্যামিতিক
বিচ্ছুরণে খুঁজে পেলাম অসীম জীবনের বহু বাঞ্ছিত ছায়াপথ,
দীঘল জনারণ্যে আমি খুঁজে পেলাম আমার একান্ত প্রিয়জন,
মানুষের কাছে আমি হেরেও জিতে গেলাম ভালোবাসার বিজয়ে,
শূন্যতার হাহাকার আজন্ম নির্বাসিত হল প্রাপ্তির কালগর্ভে,  
মানুষের ভালোবাসায় অবশেষে আমি ফিরলাম দিগ্বিজয়ী হয়ে,
যে ভালোবাসতে জানে সে কখনো হেরে যেতে পারে না,
যে ভালবাসতে জানে সে কখনো খালি হাতে ফেরে না,
যে ভালোবাসতে জানে তার অমৃত আত্মার কোন ক্ষয় নেই,
যে ভালো বাসতে জানে সে বাঁচে মানুষের ভালোবাসায়

জলজ দহন



- হাসান ইমতি

তুই আজ আবারও কেন নিদাঘের প্রগলভ বৃষ্টিতে
অকাতর ভেজালি তোর মনের নরম কোমল জমিন ?
তুই আজ আবারও নতুন করে কেন আমাকে পোড়ালি
তোকে কখনো না ছুতে পাবার পুরনো সেই কষ্টে ?
দীঘল বৃষ্টির বেপরোয়া জল আমার তোকে কখনো না
ছুতে পারার দীর্ঘমেয়াদী অসহায় অপারগতাকে উপহাসে
রক্তাক্ত করে আমার ঈর্ষামুগ্ধ চাতক চোখের সামনে
দিয়ে তোর মৌন প্রশ্রয়ের নির্লজ্জতায় আদিগন্ত তোকে
বারবার ছুয়ে ছুয়ে নেমে গেল ম্লান ভুমিসজ্জার গহীনে,
কি ভীষণ উদ্ধত্যে সে তোকে নিয়ে খেলল সারাবেলা,
কি ভীষণ ভ্রূকুটিতে তুইমুগ্ধ আমাকে ক্ষতবিক্ষত করল
বৃষ্টির প্রতি তোর নিঃশর্ত সমর্পণের সীমাহীন পক্ষপাত,
তোকে কখনো ছুতে না পারা আমার নিজস্বতাকে ছুয়ে
গেল আমার প্রতি তোর নীরব উপেক্ষার উদাসীনতা ,
বৃষ্টি জল তোকে ছুয়েছে, তোর স্পর্শ কি ছিল না ঐ
ডাগর জলে এই অপারগ ভাবনাময় অসহায় কষ্টের দুঃসহ
দহনে আমি ছুতে গেছি প্রতারক বৃষ্টির জলজ শরীর,
বৃষ্টি তবু ধুয়ে দিতে পারে নি তোকে ছুতে না পাবার কষ্ট,
সেই থেকে অহর্নিশ নির্মেঘ বৃষ্টি কেন শুধু বারবার ফিরে
ফিরে আসে তোর অনন্ত অদর্শন স্মৃতির রাজসাক্ষী হয়ে ?
আমার নিজস্ব অনুভবে বৃষ্টিকে নিয়ে কোন গতানুগতিক
ভালোলাগা আবেশের অনুরণন নেই কেবল তুই আমার আর
বৃষ্টির মাঝে অমোঘ নিয়তির মত দুর্লঙ্ঘ হয়ে রয়েছিস বলে,
আমার নিজস্বতায় বৃষ্টি মানে তোর নিঃশর্ত পক্ষপাতে বৃষ্টির
কাছে আমার সকরুন পরাজয়ের অমোঘ কষ্টের নামাবলী,
আমার একান্ত ভাবনায় বৃষ্টি মানে কেবলই বৃষ্টিভেজা তোকে
বারবার চেয়েও কখনো না ছুতে পারার দুঃসহ জলজ দহন

প্রথম ও শেষ গন্তব্য



- হাসান ইমতি
 
উত্তাপহীন ম্লান শরৎ বিকেল কাশফুল রঙা সাদা কামিজের
শুভ্র জমিন নীল আকাশের উদাসী নীলের ছটায় রাঙিয়ে
সহসা তুই এসে দাড়ালি আমার পৌরুষের দোরগোড়ায়,
এক ধরনের নিঃসীম উপেক্ষা ঠিকরে পড়ছিল তোর
চাহনিতে, সেও তোকে খুব মানিয়ে গিয়েছিল সেদিন,
কি ভালো, কি ভালো যে লেগেছিল আমার তোকে,
মনে হয়েছিল চলমান সময়টা থমকে যায় তো যাক,
বাদ বাকি সব হিসেব নিকেশ মিথ্যে হয় তো হোক,
কোন নবায়নযোগ্য ক্ষতি নেই, নেই পোষা দুঃখবাদ,  
জন্ম জন্মান্তরে তুই শুধু আমার পরিণতি হয়েই থাক
সে থেকে সাদা কাশ ফুলের প্রতি, শরতের প্রতি আমার
বেহিসাবী পক্ষপাত, সেই থেকে পৃথিবীর বাদবাকি ঋতুরা
মৃত আমার কাছে, পৃথিবীর বাদবাকি সত্যরা অপ্রমানিত
আমার তুইমুগ্ধ চোখে, বাদবাকি স্বপ্নরা অর্থহীন আমার
তুইময় বোধে, সেই থেকে সবটুকু আমিত্ব জমিয়ে রেখেছি
তোর তুইর প্রত্যাশায়, আমার একচোখা দৃষ্টির ছায়াপথ
কেবলই ক্রমাগত নিবদ্ধ হয়ে থাকে সৌরতারা খচিত
তোর নিজস্ব ছায়াময় ঝুল বারান্দার নিঃসীম শূন্যতায়,
অনন্ত আধার বৃত্তে নিজস্বতায় দাড়িয়ে থাকা অনপেক্ষ তুই
সে থেকে অদ্যবধি আমার পরিণতিহীন প্রথম ও শেষ গন্তব্য

Translate

PageRank Display Button